খাবারের তালিকায় প্রতিদিন শাক সবজি সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর সবজি কি কি?

শাক সবজি একটি উদ্ভিদ ও খাদ্য উপযোগী খাবার যার মধ্যে প্রুচুর পরিমানে পুষ্টি ও ভিটামিন পাওয়া যায়। তাই চিকিৎসকেরা খাবারের তালিকায় প্রতিদিন শাক সবজি ও উদ্ভিদ জাতীয় খাদ্য রাখার ও খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকে।

শাক সবজি একটি উদ্ভিদ ও খাদ্য উপযোগী খাবার যার মধ্যে প্রুচুর পরিমানে পুষ্টি ও ভিটামিন পাওয়া যায় তাই চিকিৎসকেরা খাবারের তালিকায় প্রতিদিন শাক সবজি ও উদ্ভিদ জাতীয় খাদ্য রাখার ও খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকে।

শাকসবজি মানুষের শরীরের বিভিন্ন পুষ্টি ও ভিটামিনের ঘাটতি পূরণ করে থাকে এবং শাক সবজি খাওয়ার ফলে মানুষের স্বাস্থ ভালো থাকে।আজ আমরা তুলে ধরবো সেই সকল শাক সবজি যা মানবদেহের জন্য অনেক প্রয়োজনীয় এবং বিভিন্ন পুষ্টি ও ভিটামিন সমৃদ্ধশালী এবং সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর সবজি কি কি সে বিষয়ে।

তাই স্বাস্থকর সবজি গুলোর কথা মনোযোগ দিয়ে পড়ুন এবং জানুন কোন শাক সবজিতে কি কি ভিটামিন ও উপাদান পাওয়া যায় এবং আপনার স্বাস্থর জন্য কতটা উপকারী ও স্বাস্থকর চলুন শুরুর থেকেই জেনে নেয়া যাক

শাক কি

শাক উদ্ভিদ থেকেই যার জন্ম যা মানুষ এই উদ্ভিদের পাতা বা পতঙ্গ গুলোকে শাক হিসেবে বিভিন্ন খন্ডে তাঁদের অঙ্গ থেকেপতঙ্গ গুলোকে আলাদা করে খাবারের জন্য ভাঁজি বা রান্না করে খায় যেমনঃ লাল শাক ,পুঁই শাক ,কলমি শাক ইত্যাদি।

আবার এই শাকের মধ্যে কিছু আলাদা বৈশিষ্ট রয়েছে যেমনঃ কচু শাক,কলমি শাক এই ধরণের শাক গুলো প্রাকৃতিক ভাবে জন্ম নেয়া শাক সবজি হিসেবে পরিচিত।

আমরা যদি আমাদের বাড়ির চারপাশে একটু ভালোভাবে লক্ষ করে দেখি তাহলে দেখতে পাবো পুকুরের মধ্যে ,ঘাসের মধ্যে প্রাকৃতিক ভাবে জন্ম নেয়া বিভিন্ন ধরণের শাক যা মানুষের খাবারের জন্য অনেক উপযোগী হয়ে থাকে এবং এই শাক গুলো অনেক ভিটামিনযুক্ত ও পুষ্টিকর হয় এবং খেতেও অনেকটা সুস্বাদু হয়ে থাকে।

সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন ও উত্তর 

প্রশ্নঃ শাক কাকে বলে

উত্তরঃ যে উদ্ভিদের অঙ্গ,পতঙ্গ বা পাতা ভাঁজি বা রান্না করে খাবারের জন্য উপযোগী হয় তাকেই শাক বলা হয়ে থাকে।

প্রশ্নঃ শাক ও সবজির মধ্যে পাথক্য কি 

শাক ও সবজির মধ্যে তেমন একটা আলাদা পাথক্য নেই যদিও সবজি শব্দটি শাক শব্দটির সাথে একটি সন্ধিমূলক ভাবে মানুষের সাস্কৃতিক ও ঐতিহ্যবাহী দেওয়া প্রতিশব্দ।সাধারণ ভাবে মানুষ যখন খাবার বা রান্নার জন্য শুধু শাক শব্দটি উচ্চারিত করে তখন একটি উদ্ভিদের মূল থেকে শুরু করে পতঙ্গের যে কোনো অংশ বোঝায়আর যখন কেউ শাকসবজি উচ্চারণ করে থাকে তখন একটি উদ্ভিদের অঙ্গ ,পতঙ্গ ,আগাছা ,ফল মূল  সহ আরো অনেক কিছু বোঝায়

এছাড়াও আপনি যদি জানতে আগহী হয়ে থাকেন যে শাক সবজি কত ধরণের বা কত প্রকার হয়ে থাকে তাহলে আমরা বলবো এই প্রশ্নের উত্তর আমাদের কাছে নেই কারণ শাক ও সবজির প্রকারভেদ বহুরূপ।আর শাক সবজি মূলত নাম ,জাত ,রং ,ঋতুর উপর পরিচিত হয়ে থাকে যেমনঃ লাল শাক ,সবুজ শাক ,সবুজ সবজি,শীতকালীন,গ্রীষ্মকালীন, ইত্যাদি।

আপনি আরো পড়তে পারেন দেহের ওজন বৃদ্ধি ও মোটা হওয়ার উপায় সম্পর্কে

শাক সবজি

শাক সবজি একটি নিরামিষ যুক্ত খাদ্য উপযোগী মানুষের জনপ্রিয় খাবার।মাছ ,মাংস ,ডিম স্বাস্থর জন্য যতটা উপকারী ও ভূমিকা পালন করে ঠিক ততটাই শাক সবজি মানুষের শরীর ও স্বাস্থর জন্য উপকারী এবং পুষ্টির সাথে ভরপুর।

তাই প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় আমিষ যুক্ত খাবারের সাথে শাক সবজির মতো নিরামিষ যুক্ত খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন।

শাক সবজির দাম অনেক অল্প তাই বলে শাক সবজির প্রতি দুর্বলতা না রাখায় ভালো কারণ এই শাক সবজির মধ্যে যে সকল এবং যতটা পুষ্টি ,ভিটামিন ,আয়রন ,প্লোটিন ছাড়াও অন্যান্য উপাদান থাকে তা কোনো আমিষ যুক্ত খাবারের মধ্যে নাও থাকতে পারে তাই ডাক্তার ও চিকিৎসকেরা খাবার তালিকায় প্রতিদিন শাক সবজি রাখার পরামর্শ দিয়ে থাকে।

সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর সবজি

আমরা সকলেই জানি প্রতিটা শাক ও সবজি আমাদের জন্য অনেক স্বাস্থকর তবে এই সবজি গুলোর মধ্যে কিছু আলাদা সবজির উপকার ও উপাদান অনেক বেশি যা আমাদের শরীর ও স্বাস্থর জন্য অনেক বেশি উপকার করে থাকে এবং সেই সাথে আমাদের শরীর ও স্বাস্থকে বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়।

তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক ১১ টি সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর সবজি সম্পর্কে তথ্য যা আমাদের স্বাস্থর জন্য অনেক উপকারী ও ক্যান্সার সহ অন্যান্য রোগ প্রতিরোধ করে

আপনি আরো পড়তে পারেন আপনার বয়সের তুলনায় স্বাস্থ ঠিক রাখার বিষয় গুলো

সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর সবজি ১১ টি 

১। মিষ্টি আলু 

মিষ্টি আলু হলো একধরণের জনপ্রিয় সবজির মধ্যে অন্যতম।মিষ্টি আলু ব্যবহারের কোনো জুড়ি নেই আমিষ নিরামিষ উভয় খাদ্য সাথে মিশ্রণ করে রান্না করা যায়।

মিষ্টি আলু হলো একধরণের জনপ্রিয় সবজির মধ্যে অন্যতম।মিষ্টি আলু ব্যবহারের কোনো জুড়ি নেই আমিষ নিরামিষ উভয় খাদ্য সাথে মিশ্রণ করে রান্না করা যায়।

মিষ্টি আলু স্বাস্থর জন্য অনেক উপকারী একটি মাঝারি ধরণের মিষ্টি আলু ১০৩ ক্যালোরি এবং ০.১৭ গ্রাম চর্বি সরবরাহ করতে সক্ষম এছাড়াও আরো বিভিন্ন ভিটামিনের ঘাটতি পূরণ করে থাকে যেমনঃ ভিটামিন এ , ভিটামিন সি ,বি ৬, ২৫% চাহিদা।আরো রয়েছে পটাসিয়াম প্রয়োজনের থেকে ১২% ,বিটা ক্যারোটিন ইত্যাদি।

মিষ্টি আলু ডায়াবেটিস রোগীর জন্য অনেক ভালো এখানেই শেষ নয় মিষ্টি আলু খাওয়ার ফলে উন্নতি হতে পারে চোখের এবং প্রতিরোধ করতে পারে ক্যান্সারের মতো ভয়াভয় রোগের।তাই খাবারের তালিকায় সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর সবজি হিসেবে যে কোনো খাবারে মিষ্টি আলু মিশ্রিত করুন। 

২। গাজর

গাজর সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর সবজি গুলোর মধ্যে একটি যা খেতে অনেক সুস্বাদু ও তৃপ্তি মূলক গাজর মানুষের চোখের দৃষ্টি বাড়াতে সাহায্য করে স্বাস্থ্যকর সবজি গাজরের মধ্যে রয়েছে মিষ্টি আলুর মতো ভিটামিন এ বিটা ক্যারোটিন , সহ প্রুচুর পরিমানে ক্যালোরি।

চিকিৎসকদের গর্বেষাণায় দেখা গেছে গাজর মানুষের সাস্থর জন্য একটি উপকারী সবজি ইহা বয়স্কদের জন্য বেশি উপকারী গাজর খাওয়ার ফলে মানুষের ক্যান্সারের ঝুঁকি অনেক কমে যায়

আপনি আরো জানতে পারেন স্বাস্থ্যবান ও মোটা হওয়ার ঔষধ কি কি

৩। ব্রোকলি 

ব্রোকলি স্বাস্থ্যকর সবজির মধ্যে একটি - এই ব্রোকলি সবজির মধ্যে রয়েছে মানুষের স্বাস্থর জন্য অনেক উপকারী ভিটামিন সি ,কে ,ক্যালোরি সহ আরো অনেক ধরণের উপাদান। 

ব্রোকলি সবজিটি একধরণের ওষধের মতো কাজ করে থাকে চিকিৎসকেরা তাই স্বাস্থ্যকর সবজি ব্রোকলি খাবারের পরামর্শ দিয়ে থাকে। ব্রোকলি মানবদেহের স্তন ,লিভার ,পাকস্থলীর মতো জায়গার ক্যান্সার রোগ প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে থাকে।

৪ । পিঁয়াজ 

পিঁয়াজ স্বাস্থর জন্য অনেক উপকারী পিঁয়াজ ক্যান্সার রোগ সহ আরো মানুষের ফুসফুসের ক্যানসার নিরাময়ে সাহায্য করে থাকে।

পিঁয়াজ স্বাস্থর জন্য অনেক উপকারী পিঁয়াজ ক্যান্সার রোগ সহ আরো মানুষের ফুসফুসের ক্যানসার নিরাময়ে সাহায্য করে থাকে।

একটি কাঁচা পিঁয়াজ থেকে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পাওয়া যায় - ক্যান্সার ছাড়াও নিয়ন্রণ করতে পারে আপনার তীব্র ব্লাড সুগারকে।

এছাড়াও চিকিৎসকদের থেকে আরো জানা গেছে যে পেঁয়াজে ক্যালোরি ,ভিটামিন সি ,ম্যাঙ্গানিজ,ভিটামিন বি ৬ পাওয়া যায় যা মানুষের জন্য অনেক স্বাস্থকর ও বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে।

৫ । ফুলকপি

ফুলকপি স্বাস্থকর সবজির মধ্যে রয়েছে প্রুচুর পরিমানে ক্যালোরি ,ভিটামিন সি ,ভিটামিন কে ,এবং ফাইবারের মতো বিভিন্ন উপাদান।

মানুষের হার্টের জন্য ফুলকপি অনেক ভালো একটি সবজি তাছাড়াও বিভিন্ন ধরণের ক্যান্সার প্রতিরোধে অনেক কার্যকরী তাই আপনি চাইলে আপনার সবজির তালিকায় ফুলকপি রাখতে পারেন।

৬। বাঁধাকপি

বাঁধাকপি শাক সবজির রাজা বলা যায় যার পতঙ্গ যুক্ত সারা শরীর খাবারের জন্য উপযুক্ত আপনি চাইলে বাঁধাকপির কোনো অংশ নষ্ট না করে পুরোটাই রান্নার জন্য তৈরী করতে পারেন।

চিকিৎসা গর্বেশকরা বলে  বাঁধাকপি খেলে মানুষ তার স্মৃতি শক্তি অনেক তীব্র ভাবে ধরে রাখতে পারে তাই আপনার স্মৃতি শক্তি ও জ্ঞান,মেধাবিকাশের আরো উন্নতির জন্য বাঁধাকপি খাওয়া শুরু করুন যা আপনার সর্বক্ষণ স্বাস্থর জন্য উপকারী। 

৭। বিট 

বিট স্বাস্থকর ও প্রচুর পুষ্টি জনক সবজি যার মধ্যে পাওয়া মাইক্রোগ্রাম ফোলেট,ক্যালোরি ও পটাসিয়ামের মতো বিভিন্ন উপাদান।

বিট সাস্থর জন্য অনেক ভালো যা মানুষের হার্টের জন্য অনেক প্রয়োজনীয় এছাড়াও সহায়তা করে থাকে মানুষের স্নায়ু,ডায়াবেটিক ,উচ্চ রক্ত চাপের মতো রোগের। তাই নিয়ম মেনে প্রোটিন বিট খাবারে উভস্ত হন।

৮। ভুট্টা 

ভুট্টা নিউট্রিয়েন্ট যুক্ত খাদ্য বা সবজি ভুট্টার মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন এ ,ভিটামিন বি ,ফাইবার ,ম্যাগনেসিয়াম,ফসফরাস,ভিটামিন কে ,ভিটামিন ই ছাড়াও অন্যান্য সকল পুষ্টি।

ভুট্টা নিউট্রিয়েন্ট যুক্ত খাদ্য বা সবজি ভুট্টার মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন এ ,ভিটামিন বি ,ফাইবার ,ম্যাগনেসিয়াম,ফসফরাস,ভিটামিন কে ,ভিটামিন ই ছাড়াও অন্যান্য সকল পুষ্টি।ভুট্টা খাবারের রুচি বৃদ্ধি ,দৈহিক গঠন ঠিক রাখে এবং শিশুদের জন্য নিউট্রিয়েন্ট যুক্ত খাদ্য উচ্চতা বাড়াতে সাহায্য করে।

 ভুট্টা আরো রোগের প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে থাকে যেমনঃ ডায়াবেটিক,রক্তনালী সহ মানবদেহের হার্টের সমস্যার ঝুঁকি কমাতে।

 ৯। টমেটো 

হ্যা আপনি ঠিক শুনেছেন সবজির মধ্যে একটি ফল যার নাম টমেটো।টমেটো অনেক স্বাস্থকর একটি ফল যা মানুষের স্বাস্থর জন্য অনেক ভালো প্রভাব বয়ে আনে।

টমেটো কাঁচা খাওয়া অনেক উপকারী হয় তবে আমরা বেশিরভাগ সময় টমেটো কেটে কাঁচা মরিচ সহ আরো কিছু সামগ্রী দিয়ে সালাত তৈরী করে থাকি।

আমরা যদি টমেটোর উপকার নিয়ে কথা বলি তাহলে প্রতিটি টমেটোর মধ্যে পাবো ভিটামিন সি ,পটাসিয়াম ,ক্যালোরি ইত্যাদি।

টমেটো আমাদের স্বাস্থর জন্য কতটা উপযোগী ও কি সহায়তা করে থাকে টমেটোর মধ্যে অনেক শক্তিশালী বিটা কেরোটিন থাকে যা আমাদের ক্যান্সারের ঝুঁকি কমিয়ে আনে এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকার কারণে আমাদের দৃষ্টি ঠিক রাখতে সহায়তা করে থাকে।

তাই ভালো সাস্থর জন্য বাজারে গিয়ে টমেটোর কথা কখনোই ভুলবেন না।

আরো পড়ুন মানসিক চাপ ও দুশ্চিন্তা থেকে মুক্তির সহজ উপায়

 ১০। পালংশাক 

পালংশাক পতঙ্গ দিয়ে ভরপুর যার জন্ম উদ্ভিদ থেকে - পালংশাক ভাঁজি করে খেতে অনেক সুস্বাদু লাগে পালংশাকের মধ্যে পাওয়া যায় বিভিন্ন ক্যালসিয়াম ,ম্যাগনেসিয়াম ,ভিটামিন সি , ফোলেট ইত্যাদি।

পালংশাক মানুষের শরীরের হাড়ের জন্য অনেকটা উপকারী ও ভালো স্বাস্থর জন্য দেহে তৈরী করে থাকে নতুন নতুন রক্ত কণিকা।

পালংশাক লাল শাকের মতো একটি শাক তবে এই রং সবুজ হয়ে থাকে। 

আপনার স্বাস্থ ভালো রাখার জন্য এবং বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বাড়িয়ে নেওয়ার জন্য বেশি বেশি পালংশাক খেতে পারেন।

১১ । মটর

মটর একটি নিরামিষ যুক্ত খাবার যার মধ্যে পাওয়া যায় ভিটামিন এ ভিটামিন বি,ভিটামিন সি ,ভিটামিন কে , ছাড়াও আরো অনেক ক্যালোরি যা একজন ক্ষুধার্ত মানুষকে বেঁচে রাখতে সক্ষম।

মটর বা সবুজ মটরসুটি আপনাকে রক্ষা করতে পারে বিভিন্ন ব্যাক্টেরিয়ার সংক্রমণ হতে আর রাখতে পারে আপনার পেট পরিষ্কার।

মটর খাদ্য ও সবজি স্বাস্থর জন্য অনেক উপকারী তাই মাঝে মাঝে মটর খাওয়া অনেক প্রয়োজনীয়।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ আপনি যদি কোনো জটিল ও কঠিন রোগে ভুগতেছেন তাহলে খাবারের তালিকায় এই ধরণের শাক সবজি রাখার আগে দয়া করে নিকটস্থ ডাক্তার ও স্বাস্থ সেবিকাদের পরামর্শ গ্রহণ করুন। তা নাহলে আপনার রোগের জন্য এইসব খাবার পার্সপ্রতিকিয়া ঘটাতে এবং আপনার রোগ আরো কঠিন অবস্থায় যেতে পারে ধন্যবাদ। 

Post a Comment

এখানে আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন। দয়া করে মনে রাখবেন যে পোস্ট ব্যতীত অন্য কোনো স্প্যাম মন্তব্য করবেন না টেকবিএন নিউজ কোনো স্প্যাম মন্তব্যর জন্য সীকৃতি দেয়না

Previous Post Next Post